চিরদিনের জন্য 'অফ ডিউটি', কফিনবন্দি হয়ে ফিরলেন জলপাইগুড়ির শংকর

  • By UJNews24 Web Desk | Last Updated 01-07-2022, 02:38:04:pm

ধসে বিপর্যস্ত মণিপুর (Manipur Landslide)। সেখানকার নোনে জেলায় ধসের মুখে পড়ে ১০৭ টেরিটোরিয়াল আর্মির একটি ক্যাম্প। তার জেরে অন্তত ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। নিখোঁজ প্রায় ৫০ জন। আর ধসের জেরে শহিদ হয়েছেন জলপাইগুড়ির এক সেনা জওয়ান (Army)। মৃত জওয়ানের নাম শংকর ছেত্রী (৩০)। জলপাইগুড়ি (Jalpaiguri) জেলার নাগরাকাটার বাসিন্দা ছিলেন তিনি। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়। ইম্ফল-জিরিবাম রেলওয়ে প্রজেক্টের কাজ চলছিল বলেই নিরাপত্তার জন্য সেখানে মোতায়েন ছিলেন জওয়ানরা।

নাগরাকাটার মংরুপাড়ার খাসবস্তিতে শংকরের বাড়িতে তাঁর মৃত্যুর খবর পৌঁছতেই কান্নায় ভেঙে পড়েন পরিবারের সদস্যরা। মার্চ মাসে বাবার চিকিৎসার জন্য নাগরাকাটার বাড়িতে গিয়েছিলেন শংকর। তারপর আবার কাজে ফিরে গিয়েছিলেন তিনি। এরপর অগাস্ট মাসে ফের তাঁর নাগরাকাটার বাড়িতে যাওয়ার কথা ছিল। যদিও তার অনেক আগেই বাড়িতে পৌঁছলেন তিনি। তবে কফিনবন্দি হয়ে!

জানা গিয়েছে, মণিপুরের নোনে জেলাতে জিরিবাম থেকে ইম্ফলের মধ্যে রেললাইনের কাজ চলছিল। তুপুল রেলওয়ে স্টেশনে সেনাবাহিনীর জওয়ানরা নিরাপত্তা দিচ্ছিলেন। আর সেখানেই ধস নামে। তার নীচে চাপা পড়ে যান সেনা আধিকারিক ও জওয়ানরা। ধসের নীচে চাপা পড়ে মৃত্যু হয় শংকরের। তাঁর স্ত্রী পুনম ছেত্রী বলেন, "মার্চ মাসে বাড়িতে এসেছিল শংকর। অগাস্ট মাসে বাবার চিকিৎসার জন্য ফের ছুটিতে আসার কথা ছিল। মার্চ মাসেই বদলি হয়ে মণিপুরে ডিউটিতে গিয়েছিল। এরপর বৃহস্পতিবার আমাদের ফোন করে শংকরের মৃত্যুর খবর দেওয়া হয়।"

 

Share this News

RELATED NEWS