শ্রদ্ধাকাণ্ডের জের? মহারাষ্ট্রে অনুষ্ঠান বাড়ি ভাড়া না পেয়ে বাতিল হিন্দু-মুসলিম যুগলের বিয়ে

  • By UJNews24 Web Desk | Last Updated 21-11-2022, 03:43:30:pm

দিল্লির শ্রদ্ধা হত্যাকাণ্ডের জের। এবার মহারাষ্ট্রে ভেস্তে দেওয়া হল হিন্দু-মুসলিম প্রেমিক যুগলের বিয়ে (Hindu Muslim Marriage)। জানা গিয়েছে, মহারাষ্ট্রের ভাসাই শহরে ২৯ বছরের এক হিন্দু মহিলার সঙ্গে ধুমধাম করে বিয়ের অনুষ্ঠান (Interfaith Marriage) বসার কথা ছিল ৩২ বছরের মুসলিম সম্প্রদায়ের এক ব্যক্তির। কিন্তু, যে অনুষ্ঠান হলে এই বিয়ের আসর বসার কথা ছিল, বেঁকে বসলেন তার মালিক। সাফ জানিয়ে দিলেন, 'লাভ জিহাদ'-এ (Love Jihad) সায় নেই তাঁর। ফলে তাঁর হলে এই বিয়েবাড়ি চলবে না। এলাকায় শান্তি বজায় রাখতে হিন্দু-মুসলিম বিবাহের অনুষ্ঠানের আয়োজন বাতিল করে দিয়েছেন ওই হল মালিক।

রবিবার সন্ধ্যায় মহারাষ্ট্রের ভাসাই শহরের একটি হলে দুই সম্প্রদায়ের এই প্রেমিক-প্রেমিকার চারহাত এক হওয়ার কথা চিল। কিন্তু, সংসার বাঁধার স্বপ্নে বিভর এই যুগলের সমস্ত আশায় জল ঢালল স্থানীয় মুসলিম সংগঠন। জানা গিয়েছে, এলাকার শান্তি বজায় রাখার দাবিতে সংশ্লিষ্ট বিয়েবাড়ির মালিককে এই বিয়ের আসর বাতিল করার কথা জানিয়েছে সেই সংগঠন। ফলে বাবা-মা রাজি থাকলেও কেবলমাত্র সামাজিক চাপে বিয়ে বাতিল হল হিন্দু-মুসলিম প্রেমিক যুগলের। জানা গিয়েছে, গত ১১ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক মহারাষ্ট্রের এই যুগলের। বাবা-মা এবং আত্মীয় পরিজনদের সমর্থনেই গত ২০১৭ সালে রেজিস্ট্রি ম্যারেজ হয় এই হিন্দু-মুসলিম যুগলের। রবিবার সামাজিক বিবাহের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু, পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়াল সমাজ। শ্রদ্ধা-আফতাবের ঘটনার রেশ এসে পড়ল তাঁদের জীবনে। প্রায় ২০০ জন অতিথি এদিন ওই হলে নিমন্ত্রিত ছিলেন। রাতারাতি সকলকে এই বিয়ে ভেস্তে যাওয়ার খবর দেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিন ধরে গোটা দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছে শ্রদ্ধা ওয়ালকারের নৃশংস হত্যার ঘটনা (Delhi Shraddha Walker Murder Case)। চলতি বছর ১৮ মে শ্রদ্ধার ওয়ালকারকে খুন করে তাঁর লিভ ইন পার্টনার আফতাব পুনাওয়ালা। এরপর তাঁর দেহের টুকরো টুকরো করে তা পলিথিনের ব্যাগে পুরে জঙ্গলে ফেলে দিয়ে আসে সে। নৃশংস এই হত্যাকাণ্ডের তথ্য নিজেই পুলিশি জেরায় স্বীকার করে নেয় আফতাব। প্রেমিকাকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে খুন করে তাঁর কাটা মুন্ডু ফ্রিজে রেখে দিয়েছিল আফচতাব পুনাওয়ালা। প্রতিদিন ফ্রিজ খুলে সেই মুন্ডু দেখত হত্যাকারী প্রেমিক। এমনকী শ্রদ্ধার কাটা মুন্ডুতে মেক আপও লাগাত সে। ইতিমধ্য়েই শ্রদ্ধা ও আফতাবের ভাড়া নেওয়া দিল্লির ছত্তরপুরের ফ্ল্যাট থেকে সেই ধারাল অস্ত্র উদ্ধার করেছে দিল্লি পুলিশ (Delhi Police)। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে তাঁর নারকো টেস্ট করে আসল সত্য উদঘাটনের চেষ্টা করছে দিল্লি পুলিশ।

 

Share this News

RELATED NEWS