‘অনেক শিক্ষা হয়েছে পাকিস্তানের, আলোচনায় বসতে রাজি’, মোদীর শরণাপন্ন পাক প্রধানমন্ত্রী

  • By UJNews24 Web Desk | Last Updated 17-01-2023, 03:42:11:pm

দুর্দশাগ্রস্ত পাকিস্তান (Pakistan)। চরম অর্থনৈতিক সঙ্কটে ধুঁকছে প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান। এক টুকরো রুটির জন্য হাহাকার পড়ে গিয়েছে পাকিস্তানের একাধিক প্রদেশে। ময়দা, মাংসের দাম সেখানে আকাশছোঁয়া। এই পরিস্থিতিতে আরও একবার সুর নরম করতে শোনা গেল পাক প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ় শরিফকে (Shehbaz Sharif)। কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) সঙ্গে খোলাখুলি বৈঠকে বসার কথা বললেন পাক প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া তিনি বলেছেন, ভারতের সঙ্গে পরপর তিনটি যুদ্ধে শিক্ষা হয়েছে পাকিস্তানের। এর ফলে শুধুমাত্র দারিদ্র্য ও বেকারত্ব দেখা দিয়েছে দেশে। তাই তিনি কাশ্মীর ইস্যু মিটমাটের জন্য আলোচনার ডাক দিলেন ফের।

 

সম্প্রতি দুবাই ভিত্তিক আরবি নিউজ টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে শাহবাজ় বলেছেন, “ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্দেশে আমার বার্তা হল, কাশ্মীর ইস্যু সমাধানের আমরা উভয়পক্ষই বসে আলোচনা করি।” তিনি আরও বলেন,”ভারতের সঙ্গে তিনটি যুদ্ধে শিক্ষা হয়েছে পাকিস্তানের। ভারতের সঙ্গে এই যুদ্ধের পর দেশে দুর্ভোগ, দারিদ্র্য ও বেকারত্ব দেখা দিয়েছে।” এই সাক্ষাৎকারে শাহবাজ় আরও বলেছেন, “ভারত ও পাকিস্তান প্রতিবেশী ছিল এবং তাদের একে অপরের সঙ্গে থাকতে হবে। শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করা বা উন্নতি করা বা একে অপরের সঙ্গে ঝগড়া করা এবং সময় ও সম্পদ নষ্ট করব কি করব না সম্পূর্ণটাই আমাদের উপর নির্ভর করে।”

 

তিনি বলেছেন, “ভারতের সঙ্গে যুদ্ধ থেকে শিক্ষা নিয়েছি এবং আমরা শান্তিতে থাকতে চাই। আমরা পারব যদি আমরা আমাদের আসল সমস্যাগুলি সমাধান করতে পারি।” ভারতের প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তিনি বলেছেন, “আমরা দারিদ্র্য দূর করে সমৃদ্ধি আনতে চাই। আমাদের নাগরিকদের শিক্ষা, স্বাস্থ্য পরিষেবা ও কর্মসংস্থানের সুযোগ দিতে চাই। বোমা, অস্ত্রশস্ত্রে টাকা নষ্ট করতে চাই না।” তিনি বলেছেন, “ঈশ্বর না করুক, যদি আমাদের মধ্যে ফের যুদ্ধ হয়, তাহলে তা নিয়ে বলার জন্য কে বা বেঁচে থাকবে?” তিনি উল্লেখ করেন, বর্তমানে দুই দেশই পরমাণু শক্তিধর দেশ।

 

Share this News

RELATED NEWS