বালি বোঝাই লরিতে ধাক্কা, ফরাক্কায় দুর্ঘটনার কবলে রাধিকাপুর এক্সপ্রেস

  • By UJNews24 Web Desk | Last Updated 04-12-2023, 08:10:57:am

মুর্শিদাবাদে দুর্ঘটনার কবলে কলকাতা-রাধিকাপুর এক্সপ্রেস। রবিবার রাতে ১.৩০ নাগাদ বালি বোঝাই লরির সঙ্গে আপ রাধিকাপুর এক্সপ্রেসের সংঘর্ষ হয়। যদিও চালকের তৎপরতায় বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে বলে জানা গিয়েছে। রেল সুত্রে জানা গিয়েছে, আপ রাধিকাপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি রবিবার সন্ধ্যায় কলকাতা থেকে ছেড়ে রাধিকাপুর যাচ্ছিল। রবিবার রাত দেড়টা নাগাদ মুর্শিদাবাদের ফরাক্কার বল্লালপুরের ব্রিজের নিচে রেললাইনে উপর একটি বালি বোঝায় লড়ি চলে আসে। তা দেখেই ট্রেনের চালক জরুরিকালীন ব্রেক কষেন। তাতেও ধাক্কা এড়ানো সম্ভব হয়নি। রাধিকাপুর এক্সপ্রেস ধাক্কা মারে বালি বোঝায় লরিতে।

লাইনচ্যুত ইঞ্জিনের চাকা

হঠাৎ ব্রেক কষার কারণে ট্রেনের ইঞ্জিনে আগুন লেগে যায়। ট্রেনের ইঞ্জিনের চাকাও লাইনচ্যুত হয়। যদিও এর জেরে কোনও হতাহতের খবর মেলেনি। দুর্ঘটনার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটি আসে রেল দফতরের একাধিক আধিকারিক। রেল পুলিশ এবং ফরাক্কা থানার আইসি দেবব্রত চক্রবর্তী বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে হাজির হন। ইতিমধ্যেই সেখানে এসে পৌঁছয় দমকল বাহিনী। দমকলের ২টি ইঞ্জিন এসে আগুন নিয়ন্ত্রণ করে।

বালি বোঝাই লরিতে ট্রেনের ধাক্কা

ট্রেনের ধাক্কায় লরিটি দুমড়ে মুচড়ে গিয়েছে। ট্রেনের ইঞ্জিনও লাইনচ্যুত হওয়ার পাশাপাশি সেখানকার রেললাইনেরও ক্ষতি হয়েছে। এই দুর্ঘটনার জেরে ওই লাইন দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। তাপস মণ্ডল নামের এক ব্যক্তি আপ রাধিকাপুর এক্সপ্রেসে কলকাতা থেকে হরিশ্চন্দ্রপুর যাচ্ছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, লরির চাকা পাংচার হয়। এর পর লরিটি রেললাইনে উঠে গিয়েছিল। এর জেরেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। ইঞ্জিনের চাকা লাইনচ্যুত হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রবিবার ব্যান্ডেল থেকে সামশি যাওয়ার উদ্দেশে রাধিকাপুর এক্সপ্রেসে উঠেছিলেন উমর ফারুক। তিনি বলেছেন, “আমরা শুয়ে ছিলাম। অনেকে ঘুমাচ্ছিল। আমি জেগেই ছিলাম। রাত দেড়টা নাগাদ একটা ঝাঁকুনি হল। এতে অনেকে জেগে গেল। তার পর অনেকে বাইরে গেল। বেরিয়ে দেখলাম লরির পিছনটা পুরো ভেঙে গিয়েছে। তার পর বুঝলাম ট্রেন ধাক্কা মেরেছে। ব্রিজের নীচে এই ঘটনা ঘটেছে। অনেক পুলিশ এসেছে।”

 

Share this News

RELATED NEWS